অসুস্থ কবিতা

অসুস্থ কবিতা

কবিতার গায় কী সব দেখি
ভাবতে অবাক লাগে,
প্রভুর আঁচড় যায়না দেখা
যা ছিলো সব আগে।

সর্ব গায়ে ক্ষত শুধুই
নীতিহীনার ক্ষত,
হত্যা খুন আর ধর্ষণ কারীর
শব্দ অবিরত।

স্তবকের প্রথম চরণ
যেইনা আনি চোখে,
হতবাক হই বিষ্মিত হই
হৃদয় ভাসে শোকে।

আজ কবিতায় দেশের প্রেমের
শব্দ গেছে মুছে,
খোদার গুণের কাব্য পড়ার
শখ গেছে সব ঘুচে।

কবিতার গায় নেই কোনো নদ
নদী কিংবা জল,
নেই স্রষ্টার স্তুতি, তবে
আছে হায়নার দল।

কবিতাকে দেখলে জাগে
মনের মাঝে ভয়,
গুজব গুলো এই না বুঝি
আবার সত্য হয়।

কবিতা আজ শয্যাশায়ী
ধরছে যুগের জ্বর,
আর কী কভু সেই কবিতা
ফিরবে নিজের ঘর!

আর কী পাবো নন্দলাল আর
শিক্ষাগুরুর কাব্য,
আবার কবে কাব্য পড়ে
উত্তম অধম ভাব্য?

বীর পুরুষের ঘোড়ার পিঠে
নিজেকে করবো দাঁড়,
সেই কবিতা কবে হবে
না কি হবেনা আর?

—সমাপ্ত–

818total visits,1visits today

এস এম মঞ্জুর রহমান