ওরা এগারো জন

খুলনা জেলার ডুমুরিয়ায় চেঁচুড়িয়া গ্রাম,
মানবতার সুবাস সেথায় ছড়ায় অবিরাম।
মানব সেবায় এগারো জন গড়ে একটা দল,
সব ঋতুতে গরীব দুখীর বাড়ায় মনোবল।
শীতে যখন থরথরিয়ে কাঁপতে থাকে লোক,
মনের মাঝে ঝড় তুলে যায় দেখে দুখীর শোক।
জীর্ণ কিংবা নতুন কাপড় যোগাড় করে রোজ,
বিলিয়ে দেয় দুখীর মাঝে নিয়ে তাদের খোঁজ।
চাকরিজীবী খুঁজে খুঁজে পায় যে অনুদান,
কম্বল দিয়ে গরীব গুলোর শীতে বাঁচায় জান।
যে রোগীটা মুমূর্ষু আর রূধির প্রয়োজন,
রক্ত দানের ভক্ত তারা দিচ্ছে প্রতিক্ষণ।
যে দুখিনীর মাথা গুজার নাইত কোথাও ঠাঁই,
দশের দানে গড়ছে বসত দেখতে যাহা পাই।
কষ্টে ভরা জীবন যাদের আয়ের পথে বাঁধ,
অর্থ সময় শ্রমের দানে পুরায় নানান সাধ।
ইয়াসিন নামের যে ছেলেটা তাদের দলের শির,
নৈতিকতা জাগরণেও কাজ করে যায় ধীর।
সততার এক দোকান করে লাগাতে চায় তাক,
যার মতো সেই মূল্য দিয়ে পন্য নিয়ে যাক।
মানবতার মজুদ ঘরে থাকবে সবার চোখ,
যার কাছে যা লাগছে পুরান রাখবে উদার লোক।
গরীব যারা দুখী যাদের জিনিস প্রয়োজন,
মানবতার মজুদ ঘরে খুঁজবে সারাক্ষণ।
সেবা দিতে সবার তরে গাঁয়ের গণ্ডি পার,
দিনে দিনে যাচ্ছে ছুঁয়ে ভিন্ন জেলার ধার।
কে দিলো এই ছোট্ট বুকে এতো আবেগ বান,
নিত্যনতুন যাচ্ছে গড়ে মানবতার গান।
উদারতার মূর্ত প্রতীক সবাই দেখে যান,
সংকীর্ণতার সীমা ভেঙ্গে ছুঁয়েছে আসমান।
দুখীর মাথায় তারা এখন ভরসার এক হাত,
সেবার মাঝে নাই ভেদাভেদ হিন্দু মুসলিম জাত।
ওরা শুধু চেঁচুড়িয়ার সেই কথা নয় ঠিক,
কর্ম তাদের ছড়ায় যাবে দেশের চারিদিক।
এমনি করে এগারো জন গড়তে দুখীর বল,
দেশের মাঝে গড়ে উঠুক হাজার শতদল।
—সমাপ্ত—

548total visits,1visits today

এস এম মঞ্জুর রহমান

Leave a Reply