করোনায় করুন পরিনতি

চীনের উহান শহর হতেই
ছড়ায় পড়েছে করোনা,
থাইল্যান্ড কানাডা ইতালি জুড়িয়া
বড়ই করুন বর্ণনা।

সারা দুনিয়ায় অর্ধাধিক দেশে
করোনা করেছে বিস্তার,
অসহায় সবে বুঝেছে এখন
নাহি বুঝি আর নিস্তার।

একনয় দুইনয় হাজার ও লাখ
রোগীরা প্রত্যহ ভিড়ছে,
কেউ যেনো আজ কভু কারো নয়
নিজেকে বাঁচিয়ে ফিরছে।

রোগীর নিকটে দাঁড়াতে আপন
ভয়ের কারনে কাঁপছে,
রোগীকে দেখাতে একটু করুনা
শত বারে সবে ভাবছে।

আপন ছেলেরা বৃদ্ধা মাতাকে
ফোনেতে দিতেছে বিদায়,
অশ্রু সিক্ত নয়নে তাদের
ছারখার হয়েছে হৃদয়।

কেমন মৃত্যু লিখেছ আল্লাহ
কেহ যা দেখেনি আঁখিতে,
মৃত্যুর ক্ষণেও পারছে না কেহই
স্বজনেরে বুকে রাখিতে।

ছোঁয়াছে এ রোগ অগোচরে চলে
বোঝা বড় দায় গতিটা,
চাইছে না কেহ এ রোগে পড়িয়া
করিবে নিজের ক্ষতিটা।

শরীরে যন্ত্রণা গলাতে পিপাসা
বক্ষে শোকের পাহাড়,
ভাইরাস ধরিলে সকলে ঘোষিছে
মৃত্যু হয়েছে তাহার।

অবহেলা আর অনাদরে লোকে
মৃত্যুকে করিছে বরণ,
হতভম্ব হয়ে নির্বিকার আজি
খোদাকে করিছে স্মরণ।

ভীতিতে ভীষণ কাঁপছে পৃথিবী
কাঁপছে লোকের অন্তর,
উপায় খুঁজেও পাচ্ছেনা কেহই
রুখিবে তা-অতি-সত্বর।

অসহায় সবে করুনা ভিখারি
সরব খোদার দরবার,
বাঁচিতে সবারে দাওহে আল্লাহ
উপায় কিছুটা করবার।

মৃত্যুতো হবেই মরবো সকলে
তবুও এটাই চাওয়া,
গোসল করায়ে জানাযার সাথে
বিদায় নসিবে পাওয়া।

ক=কলেমা পড়ো
রো=রোজা রাখো
না=নামাজ আদায় করো

—সমাপ্ত–

418total visits,1visits today

এস এম মঞ্জুর রহমান