ক্ষমা

আজ মরিলে কালকে দু’দিন,ডাকবে লোকে মৃত,
সেসব কথা ভেবে হলাম,আজকে বড় ভীত।
যার সাথে যে চলাফেরায়, পাপ করেছি জমা,
সময় যদি না পাই কভু,চাইতে পাপের ক্ষমা।

আজকে আছি শহর মাঝে,কাল যদি যাই গাঁয়ে,
আসতে যদি না পারি আর,চড়ে শখের নায়ে।
শুকুর কে যে হুকুম দিলাম,নীরস গলা তুলে,
সে যদি পায় ব্যথা এবং না যায় সেসব ভুলে।

বান্দার হকের ক্ষমা কভু,দেয়না আল্লাহ নিজে,
এই পাপেতে পরকালে ,চক্ষু যাবে ভিজে।
উপায় সেদিন থাকবে না আর,কঠিন আজাব ছাড়া,
আন খুঁজে আন-চাইবো ক্ষমা,ব্যথিত আজ যাঁরা।

ডাকতে যেনো যাসনে ভুলে,কাজের মেয়ে দুটি,
কাজের শেষে দিছি যাদের,শুধুই পোড়া রুটি।
ডাক দারোয়ান, মালী, মুচি,কেউনা থাকুক বাদ,
ক্ষমা চেয়ে মিটাই মনের,সুপ্ত থাকা সাধ।

যে শরীকের ক্ষেতের আইল,আমার জমির পাশে,
লাঙ্গলের ফাল দিছি আড়ে,একটু বেশির আশে।
পরশ আলীর দোয়ায় জানি,কাঁপপে আরশ খান,
তাঁর কাছে আজ পাপ যে জমা,আনরে ডেকে আন।

মা হারা যে অনাথ শিশু,রোজ ঘুরে যায় বাড়ি,
আজকে এলে ডাকিস তারে,দিসনা যেনো ছাড়ি।
অনাহারে অভাগিটার,অস্তি চর্ম সার,
উপবাসে দিসনে যেতে,কভু একটি বার।

অতি অগাধ ধন গরিমা,দেয়না যে সব সুখ,
ক্ষমা চেয়ে সেই সুখে আজ,ভরাবো এই বুক।
কার সাথে মোর বিরোধ বেঁধে, মনের কষাকষি,
সব জনাকে করছি স্মরণ, হিম নিরালায় বসি।

ফনো মিয়া পরকালে,আজ বুঝি সে হাসে,
এপারে মোর আঁখি যুগল,অঝোর ধারায় ভাসে।
ক্ষমা চাওয়ার নাই যে সুযোগ,জমির দিয়ে ফাঁকি,
আর পাবোনা খুঁজে তাকে,যতই জোরে ডাকি।

ধাক্কা খাওয়া পথিকেরে,মারছি ঘুষি কিল,
তার মায়াতে মনটা কাঁদে,হতাশ করে দিল।
কোথায় পাবো খুঁজে তাকে,যার ছিলোনা ভুল,
রাগের বশে আঘাত করে,হারালাম দু-কূল।

নাইবা যদি তাদের কাছে,চাইতে পারি ক্ষমা,
জাহান্নামের চাবি জানি,থাকবে সেথায় জমা।
এই পাপীকে দিও খোদা,নিষ্পাপী এক দম,
আসবে যখন নিতে আমায়,তোমার হুকুম যম।

—সমাপ্ত–

781total visits,1visits today

এস এম মঞ্জুর রহমান