গবেষণার রায়

গবেষণার রায়

দিবসের শেষে এসে
ক্লান্ত দেহ,
শুতে দেখি তেলাপোকা
বিছানায় সেও

আমি বলি যারে ভাই
নিজের কাজে,
তোকে দেখে গায়ে মোর
লাগে বাজে।

যত তারে ছুড়ে দেই
অনেক দূরে,
দৌড়ে সে আসে ফিরে
কাছেই ঘুরে।

ছোটো কালে সাধ ছিলো
গবেষণার,
তাকে বলি ছাড় তোকে
দিবো না আর।

একটি পা ছিঁড়ে তারি
বলি যেই রান,
তেলাপোকা আবারও
দৌড়ে পালান।

দুটি পা ছিঁড়ে আবার
বলি যেই রান,
তেলাপোকা তাই শুনে
দৌড়ে পালান।

একে একে সব পা-কে
কাটি যখন,
দৌড়াতে পারে না সে
আগের মতন ।

গবেষণা হলে শেষ
বাজে তিনটা,
কী পেলো গবেষণায়
আজি দিনটা।

ঘুম চোখে লিখে রাখি
এই হলো রায়,
সব পা কাটিলে পোকা
শুনতে না পায়।

ঠ্যাং বিনা যদি পোকা
শুনতে পেতো,
রান শুনে তেলাপোকা
দৌড়ে যেতো।

এই রায় পড়ি যখন
সকাল বেলা,
হাসি বসে ঘরেতেই
সেই একেলা।

নিদ্রা না হলে ভালো
কাজে হয় ভুল,
বুঝেছি সেদিন আমি
ভুল নয় এক চুল।

—সমাপ্ত—

4374total visits,4visits today

এস এম মঞ্জুর রহমান

Leave a Reply