নিজেকে অপরাধী ভাবি

১৯৯৫ সালের গ্রীষ্ম কালের কথা তখন আমার বয়স নয় বছর সাথে আমার এক বন্ধু, এক মুরব্বী চাচার অনুরোধে তার গাছের আম পেড়ে দিতে যাচ্ছিলাম।পথিমধ্যে এক চাচাতো ভাই এর সাথে দেখা,যে আমার অতি শিশু কাল হতে খেলার সাথী। আমাকে খুব বিশ্বাস করত ভালোবাসত,যা বলতাম তাই শুনত।ওকে যখনই বললাম আমার সাথে যাবি,দৌড়ে চলে আসলো। ও ছিলো আমাদের মধ্যে খুবই দূরন্ত
।এক সময় আমরা গাছের কাছে পৌছলাম,গাছটি যেমন মোটা তেমনি উঁচু।অন্য ছোট গাছের সাহায্য নিয়ে আমরা গাছটিতে উঠে একটি পাকা আম ভাগ করে তিনজন নিয়ে তিনটি ভিন্ন ডালে উঠতে থাকি।এক সময় দেখি আমার চাচাত ভাই হেলানো মোটা ডালের উপর হেঁটে হেঁটে উঠে যাচ্ছে আর আম খাচ্ছে।
আমরা ওকে বলি সাবধান হবার জন্য,সে বলে ঠিক আছে কোন সমস্যা নাই,এই বলে হাসতে হাসতে আরো উপরে উঠতে থাকে,আমারা আমাদের মত করে আম পাড়তে থাকি,এক সময় হঠাৎ শব্দে তাকিয়ে দেখি আজিজুল বিভিন্ন ডালে আঘাত পেতে পেতে নিচে এসে পড়ছে। আমরা তড়িঘড়ি করে নিচে নেমে দেখি কান মুখ দিয়ে রক্ত গড়িয়ে পড়ছে। নিশ্বাস বন্ধ হয়ে গেছে,আমরা ওকে উচু করে বাড়িতে এনে ওর আম্মার কাছে দেই,সে ভীষণ কান্না শুরু করে,আমি আমার এক প্রিয় ভাই কে চিরদিনের জন্য হারিয়ে ফেলি।শুধু এ কথাটির মনে হয় আমি যদি তাকে না ডাকতাম তবে ও মারা যেত না।নিজেকে বড় অপরাধী মনে হয়,সেই অপরাধে আমি তার মায়ের সামনে যেতে পারি না।জানিনা আর কত দিন এ অপরাধবোধ আমাকে তাড়া করে বেড়াবে?

669total visits,1visits today

এস এম মঞ্জুর রহমান

Leave a Reply