বাবা(বাবাকে নিয়ে একগুচ্ছ ছড়া)

০১) আমার বাবা

আমার বাবা লক্ষী বাবা
মিষ্টি আনে রোজ,
বাবার সাথে বাইরে গেলেই
খাওয়ায় ভূরিভোজ।

বাবা যখন আদর করেন
আমায় কোলে তুলে,
বাবার প্রতি সব অভিমান
যাই তখনি ভুলে।

বাবা আমার খেলার সাথী
বন্ধু প্রিয়জন,
বাবা আমার পূরণ করেন
সকল প্রয়োজন।

আমি বাবার বাবা আমার
আমরা আপন জন,
বাবা মতো হয়না আপন
অন্য কোনো জন।
—সমাপ্ত—

০২) বাবা

জীবন জুড়ে মাথার পরে
বাবা ছাতার মতো,
কারও কাছে তাঁর ভূমিকা
বিশাল গাছের মতো।

শক্তি সাহস শৌর্য ছায়ায়
সারা জীবন জুড়ে,
চলার পথের পাথেয় হয়
স্নেহের চাদর মুড়ে।

বাবা বিনে চলার পথে
হাজার রকম ভয়,
রাখলে বাবা এই হাতে হাত
সব বাঁধা হয় জয়।

বাবার প্রতি সালাম হাজার
হায়াত বাড়ুক তাঁর,
এই জীবনের সফলতায়
বাবাই অহংকার।
—সমাপ্ত—

০৩) বাবার কথা

বাইরে হতে বাবা এসে
ডাকলে খোকা খুকি,
ছুটে যেতো তাঁর ছেলেরা
আজকে যাঁরা দুখি।

বলত হেসে গোল করোনা
ভাগ করে খাও সবে,
মিলে মিশে থাকলে তবেই
শক্তিশালী হবে।

কথায় কথায় সেই উপদেশ
দেয়না আজ আর কেহ,
মাটির সাথে মিশে আছে
মিষ্টি বাবার দেহ।

বাবার হাসির মুখটা যখন
আজও আসে মনে,
অগোচরেই জল গড়িয়ে
পড়ে চোখের কোনে।

শান্তি সুখের ঘুমে থেকো
দু-হাত তুলে বলি,
বাবা তোমার সব উপদেশ
আজও মেনে চলি।

—সমাপ্ত—

(যাদের বাবা নাই তাদের অনুভূতির প্রকাশে)

2088total visits,2visits today

এস এম মঞ্জুর রহমান

Leave a Reply