রাজার বাড়ি দাওয়াত শেষে পথের মানুষ পথেই মেশে

মহামারির মরন থাবায়
লক ডাউনে দেশ,
সবাই মিলে চাইছে যেনো
দূর্গতি হয় শেষ।

মাইক,টিভি,রেডিওতে
আদেশ দিছেন সরকার,
মহামারি মোকাবেলায়
ঘরে থাকা দরকার।

কেউ যদি এই আদেশ ভাঙ্গে
ছাড় হবেনা তার ,
হাতকড়াতে বন্দী করে
রাখবে কারাগার।

রাজ আদেশে আর্মি পুলিশ
বিজিবি তাই মাঠে,
বেধড়ক মার দিচ্ছে যদি
কেউ পথে আজ হাঁটে।

লাঠি পেটা চড় চাপট আর
রক্ত চোখের দ্বারা,
ঘর ছেড়ে আজ বাইরে যারা
দিচ্ছে তাদের তাড়া।

অট্টালিকার মালিক যাঁরা
ব্যাংকে আছে টাকা,
তারা হয়তো তাড়া খেয়ে
পথ করিবে ফাঁকা।

কিন্তু…..

কোথায় তাদের বলবে যেতে
কোথায় বলবে যেতে,
পথেই যাদের বসত বাড়ি
পায়না যারা খেতে।

যাঁদের কাছে চাল চুলা নেই
আকাশ মাথার পরে,
কী করে আজ বলবে তাদের
বন্দী থাকো ঘরে?

এসি ঘরে বসত যাঁদের
বুঝে তাদের দাম,
ঘরের মাঝে বন্দী করতে
ঝরছে গায়ের ঘাম।

আর……

মাথার পরে আকাশ নিয়ে
বন্দী যাঁরা রোজ,
আজকে তারা কোথায় যাবে
কে রাখিবে খোঁজ?

দিন দশেকের খাবার নিয়ে
সবাই ঘরের মাঝ,
কিন্তু আহার কোথায় পাবে
ভিক্ষা যাদের কাজ।

করোনার এই লক ডাউনে
জায়গা পেলেও তারা,
একাদশের দিনে হবে
আবার গৃহহারা।

—সমাপ্ত–

654total visits,1visits today

এস এম মঞ্জুর রহমান