শিমুল এক জীবন্ত কাব্য

শিমুল নামের সেই ছেলেকে
দেখতে যদি চাও,
যশোর জেলার তাঁর বাড়িতে
তোমরা সবে যাও।
জন্ম নিয়ে ভালোবাসায়
এই দুনিয়ার পর,
বাবা বিহীন জনম ভরে
থাকছে মায়ের ঘর।
দিন মজুরি করছে মা তার
খাটছে দিবা রাত,
গরীব বিধায় স্বামীর সোহাগ
নাইরে তাহার সাথ।
বাবার আদর পায়না শিমুল
পায়না পরিচয়,
যদিও তার জন্মদাতা
পাশের পাড়ায় রয়।
শিমুল যখন নাইনে পড়ে
প্রথম বাবা ডাক,
রক্ত চোখে অনেক ক্ষণে
রইলো করে তাক।
কে বলেছে বাবা আমি
বলরে ছ্যাড়া বল,
থাপড়ে আজি ভেঙে দেবো
দুটোর পাপী গাল।
সমাজ তাকে নাইবা দিলেও
ছেলের অধিকার,
বাপের যমজ করছে খোদায়
মুখের মাঝে তার।
আরশ আলার বিচার নিখুঁত
বুঝতে যদি চাও,
বাবার সাথে ছেলের সুরত
দেখবে সবে যাও।
শিমুল এখন পড়ছে অনার্স
গড়ছে রঙ্গিন দিন,
বাবা ডাকের দুখের বাঁশি
সুখকে করে ক্ষীণ ।
বিচার কারী হাজার হাজার
ব্যাথার ব্যাথী নাই,
খুঁজছে শিমুল ন্যায় বিচারক
কোথায় গেলে পাই?

770total visits,1visits today

এস এম মঞ্জুর রহমান

Leave a Reply