পশুপাখির স্বাধীনতা

স্বাধীন আজকে শেয়াল কুকুর-
কষ্টে খাঁচার ময়না,
দুঃক্ষে নিজের পাখনা ছেঁড়ে
ব্যাথা তাহার সয়না।
আছে যত হাবলা বলদ-
বাস করে দল ছেড়ে,
হায়না গুলো খায় কলিজা
ছিঁড়ে লেজটি নেড়ে।
ময়নার চোখে গাধা গুলোর-
জীবন বড় মুক্ত,
যদিও তার কাজের সময়
চোখে ঢাকনা যুক্ত।
স্বাধীন আছে মুরগীর দল-
ইচ্ছে পাখা মেলে,
খাঁচায় বন্দী ময়নার চোখে
কুক্কু কুক্কু খেলে।
ময়না দেখে মশা মাছি
মিউ ডাকা যে প্রাণী,
পা টা চেটে স্বাধীন তারা
বয়না বন্দী ঘানী।
আছে যত ইঁদুর ছুঁচা-
গায়েতে দুর্গন্ধ,
স্বাধীন ভাবে ঘোরে ফেরে
রূপে না কেউ অন্ধ।
ময়নার রূপের মোহন বাঁশি-
তার জীবনের কাল,
স্বাধীনতার সুখ হারিয়ে
আজকে করুণ হাল।
বসছে সভা সুন্দর বনে-
বাঘ সিংহ সব মিলে,
খলশে কৈ-এ মিলছে সবাই
বিশ্বে বিলে ঝিলে।
ময়নার স্বাধীন সুখের দাবি
বাজছে যখন প্রাণে,
রাক্ষস মালিক গড়ছে খাঁচা
শুকে সবি ঘ্রাণে।
রাঘব বোয়াল আসছে যখন
সাগর করে পার,
জলশূন্য নদী গড়ে
মানায় তাদের হার।
ময়না যদি মানুষ হতো
কারাগারে বন্দী,
করত কি কেউ তার স্বাধীনে
কাঁধে কাঁধে সন্ধি।
মুক্ত পাখির রূপে সুরে
সবাই মজে যাই,
বন্দী পাখির মুক্তি দিতে
কারো চেষ্টা নাই।

877total visits,2visits today

এস এম মঞ্জুর রহমান

Leave a Reply